সোমবার, ডিসেম্বর ১১, ২০১৭, ১:৪২:০৩ অপরাহ্ণ
Home » শিক্ষা » ২০১৮ সালেই হল পাবে জবির মেয়েরা : উপাচার্য

২০১৮ সালেই হল পাবে জবির মেয়েরা : উপাচার্য

জবি প্রতিনিধি:

হলবিহীন সম্পূর্ণ অনাবাসিক বিশ্ববিদ্যালয়ের তকমা মুছতে যাচ্ছে দেশের অন্যতম আদর্শ বিদ্যাপীঠ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি)। বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশেই মেয়েদের জন্য নির্মিতব্য বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের মাধ্যমে হাজারো শিক্ষার্থীর প্রাণের দাবি ‘আবাসিক হল’ পেতে যাচ্ছে জবি। আর উপাচার্যের আশা আগামী বছর অর্থাৎ ২০১৮ সালের শেষের দিকেই হলে উঠতে পারবে মেয়েরা।

 

জানা যায়, ২০০৫ সালে বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে প্রতিষ্ঠার পর থেকেই একাধিকবার হলের দাবিতে আন্দোলন করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে বাংলাবাজার সরকারি স্কুলের পাশে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতরের তত্ত্বাবধানে শুরু হয় প্রথম ছাত্রী হল নির্মাণ। ১৬ তলা প্রস্তাবিত ‘বেগম ফজিলাতুন্নেছা ছাত্রী হল’ নামের এ আবাসিক হলের কাজ ১০ তলা পর্যন্ত ইতোমধ্যেই সম্পন্ন হয়েছে।

 

রবিবার (৩ ডিসেম্বর) ছাত্রলীগ, প্রকৌশলী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের নিয়ে নির্মানাধীন হলটি পরিদর্শন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মিজানুর রহমান।

 

এসময় তিনি বলেন, এখানে ছোট্ট একটি জায়গায় এত বড় একটি হল নির্মাণ করতে গিয়ে আমাদের যথেষ্ট বেগ পেতে হচ্ছে। এখানে নির্মাণ কাজ করার জন্য যতটা যায়গা থাকার প্রয়োজন তা নেই। সেই মিরপুর থেকে ঢালাই মিশ্রণ এনে এখানে কাজ করতে হয়। তারপরেও খুব দ্রুত কাজ হয়েছে, ২০১৮ এর জুন মাসে হলটিতে আমাদের মেয়েরা উঠতে পারবে আশা করি।

 

এসময় তিনি আরো বলেন, মেয়েদের হলের মধ্যে যত কিছু থাকা দরকার তার সবই এখানে থাকবে। ডাইনিং, ক্যান্টিন, কমনরুমসহ সব করা হচ্ছে। আসবাবপত্রও এরইমধ্যে বানানো শুরু হয়েছে। হয়তো আকারে কিছুটা ছোট হবে তাও সবই থাকবে।

 

এদিকে হল নির্মাণে দায়িত্বরত কনস্ট্রাকশনের প্রজেক্ট ম্যানেজার জিল্লুর রহমান জানান, ২০১৮ সালের শেষের দিকে কাজটি পুরোপুরি শেষ হবে। যদিও এবছরেই কাজ শেষ হওয়ার কথা ছিল কিন্তু ভবনের কাজ করার জন্য আশপাশে পর্যাপ্ত জায়গা না থাকায় একপাশ থেকেই কাজ চালাতে হয়। ফলে একের অধিক কাজ করা না যাওয়ায় সময় বেশি লাগছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *