শুক্রবার, জানুয়ারি ১৮, ২০১৯, ৬:২১:৪৮ পূর্বাহ্ণ
Home » জাতীয় » সরকারি বিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন শুরু ১ ডিসেম্বর

সরকারি বিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন শুরু ১ ডিসেম্বর

অনলাইন ডেস্ক :
সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা ও লটারির সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী ১৭ থেকে ১৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষা (দ্বিতীয় থেকে নবম শ্রেণি) ও ২৩ ডিসেম্বর প্রথম শ্রেণির লটারি অনুষ্ঠিত হবে। ১ থেকে ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত অনলাইনে এ আবেদন কার্যক্রম চলবে।

বুধবার মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের (মাউশি) ‘২০১৯ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি নীতিমালা’ সংক্রান্ত এক সভায় ভর্তির সময় নির্ধারণের প্রস্তাবনা করা হয়েছে।

সভার প্রধান মাউশির পরিচালক (বিদ্যালয়) অধ্যাপক আব্দুল মান্নান জাগো নিউজকে বলেন, সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ১ ডিসেম্বর থেকে ভর্তি ফরম বিক্রি শুরু হবে। ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত অনলাইনে ভর্তি ফরম পাওয়া যাবে। ভর্তি ফরমের দাম ১৫০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। টেলিটক মোবাইলের মাধ্যমে মূল্য পরিশোধ করতে হবে। ২৩ ডিসেম্বর প্রথম শ্রেণির ভর্তি লটারি আয়োজন করা হবে। সেদিন বিকেলেই ফলাফল প্রকাশ করা হবে। দ্বিতীয় শ্রেণি থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত ১৭, ১৮ ও ১৯ ডিসেম্বর ভর্তি পরীক্ষার আয়োজন করা হবে। ৩০ ডিসেম্বর ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

তিনি বলেন, গতবারের মতো এবারও মহানগরের ৩৫টি সরকারি বিদ্যালয়কে ‘এ’ ‘বি’ ও ‘সি’ এই তিনটি ক্যাটাগরিতে ভাগ করা হয়েছে। ‘এ’ ক্যাটাগরিতে ১৩টি বিদ্যালয়ে ১৭ ডিসেম্বর, ‘বি’ ক্যাটাগরিতে ১২টি ১৮ ডিসেম্বর ও ‘সি’ ক্যাটাগরিতে ১২টি ১৯ ডিসেম্বর ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করা হবে।

তিনি আরও বলেন, ঢাকা মহানগরের সব বিদ্যালয়ের শূন্য আসনের তালিকা চাওয়া হয়েছে। শূন্য আসনের তালিকা পাওয়ার পর যাচাই-বাছাই করা হবে। পরবর্তী এক সপ্তাহের মধ্যে এ সংক্রান্ত বিষয়ে একটি নির্দেশনা জারির মাধ্যমে ভর্তি কার্যক্রম শুরু করা হবে। ঢাকার বাইরের সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলোতেও একই সময়ে লটারি ও ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করা হবে। তবে জেলা পর্যায়ে কেউ চাইলে দুই বা তিনদিন আগে পরেও করতে পারবে।

এদিকে, বেসরকারি স্কুল অথবা স্কুল অ্যান্ড কলেজে মাধ্যমিক, নিম্ন মাধ্যমিক ও সংযুক্ত প্রাথমিক স্তরে ২০১৯ শিক্ষাবর্ষে ভর্তির খসড়া নীতিমালা চেয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ থেকে শিক্ষা অধিদফতরে পাঠানো এক চিঠিতে এ নীতিমালা চাওয়া হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার এ চিঠি জারি করা হয়।

মন্ত্রণালয়ের চিঠিতে বলা হয়, ২০১৯ শিক্ষাবর্ষে বেসরকারি স্কুল এবং স্কুল অ্যান্ড কলেজগুলোতে মাধ্যমিক, নিম্ন মাধ্যমিক ও সংযুক্ত প্রাথমিক স্তরে শিক্ষার্থী ভর্তির জন্য ‘বেসরকারি স্কুল ও স্কুল অ্যান্ড কলেজে মাধ্যমিক, নিম্ন মাধ্যমিক ও সংযুক্ত প্রাথমিক স্তরে শিক্ষার্থী ভর্তির নীতিমালা ২০১৮’ প্রণয়ন করা প্রয়োজন।

অধিদফতরের মহাপরিচালককে ৩ কর্মদিবসের মধ্যে বেসরকারি স্কুল, স্কুল অ্যান্ড কলেজে মাধ্যমিক, নিম্ন মাধ্যমিক ও সংযুক্ত প্রাথমিক স্তরে শিক্ষার্থী ভর্তির নীতিমালা ২০১৮’ এর খসড়া শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠাতে বলা হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের শিক্ষাপঞ্জি অনুযায়ী স্কুলের বার্ষিক পরীক্ষা ১৮ ডিসেম্বর এবং কলেজের পরীক্ষা ৩ ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ করার নির্দেশনা রয়েছে। কিন্তু নির্বাচনের কারণে এ পরীক্ষা আগেই নেয়া শুরু করবে স্কুলগুলো। শিক্ষা অধিদফতর থেকে এ ধরনের চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। অধিদফতর থেকে ২০১৯ শিক্ষাবর্ষে বেসরকারি স্কুল অথবা স্কুল অ্যান্ড কলেজে মাধ্যমিক, নিম্ন মাধ্যমিক ও সংযুক্ত প্রাথমিক স্তরে শিক্ষার্থী ভর্তি নীতিমালা-১৮ এর খসড়া নীতিমালা মন্ত্রণালয়ে পাঠানোর পর সেটি চূড়ান্ত করা হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৮ শিক্ষাবর্ষের জন্য ঢাকা মহানগরের সরকারি মাধ্যমিক স্কুলে ১ ডিসেম্বর থেকে আবেদন শুরু হয়। চলে ১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত। প্রথম শ্রেণির ভর্তি লটারি ২৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিতীয় থেকে নবম শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষা চলে ১৯ থেকে ২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। ৩০ ডিসেম্বর ফলাফল প্রকাশ করা হয়। কিন্তু ২০১৯ শিক্ষাবর্ষে এসব কার্যক্রম ১৫ ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ করা হবে। এ কারণে নভেম্বরের মধ্যেই নীতিমালা চূড়ান্ত করা হবে। এরপর তা ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে। ভর্তি বিজ্ঞপ্তিও দেয়া হবে নভেম্বরের মধ্যে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *