মঙ্গলবার, অক্টোবর ২৩, ২০১৮, ২:৩৯:১৭ অপরাহ্ণ
Home » শিক্ষা » বেসরকারী স্কুল শিক্ষকদের বয়সসীমা ৩৫ করা হচ্ছে

বেসরকারী স্কুল শিক্ষকদের বয়সসীমা ৩৫ করা হচ্ছে

অনলাইন ডেক্স :
বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি প্রতিষ্ঠান) শিক্ষক নিয়োগে বয়সসীমা নির্ধারণ করা হচ্ছে। সর্বোচ্চ বয়স হতে যাচ্ছে ৩৫ বছর। রবিবার সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় শিক্ষক নিয়োগে বয়সসীমা ৩৫ করার প্রস্তাবে সম্মতি দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। আগামী সভায় এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। যেটি কার্যকর হলে সর্বোচ্চ ৩৫ বছর বয়সের পর কেউ আর বেসরকারী এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক হতে পারবেন না।

জানা গেছে, আদালতের নির্দেশের পর বেসরকারী শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) থেকে বেসরকারী শিক্ষকদের চাকরি যোগদানের বয়সসীমা নির্ধারণ করতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে আবেদন করা হয়েছিল। তার প্রেক্ষিতেই রবিবার মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব

মোঃ সোহরাব হোসাইনের সভাপত্বিতে সভা বসে। সভায় মন্ত্রণালয়ের উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সভায় এনটিআরসিএর দেয়া প্রস্তাব অনুযায়ী বেসরকারী শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে ৩৫ বছর করার পক্ষে মত দিয়েছেন সকল কর্মকর্তা। আগামী সপ্তাহের মধ্যে পরবর্তী সভার মাধ্যমে বিষয়টি চূড়ান্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সভায় উপস্থিত কর্মকর্তারা।

আদালতে মামলার কারণে গত দুই বছর ধরে বেসরকারী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগ বন্ধ রয়েছে। ফলে যোগ্য প্রার্থীদের নিয়োগে সুপারিশ করলেও তাদের নিয়োগ দেয়া যাচ্ছে না। সারাদেশে বেসরকারী স্কুল-কলেজে ৪০ হাজার শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে। ফলে দেশের প্রায় সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই শিক্ষক সঙ্কট দেখা দিয়েছে। বর্তমানে এনটিআরসিএর নিবন্ধিত সারাদেশে প্রায় ৬ লাখ প্রার্থী চাকরির অপেক্ষায় রয়েছেন। বিভিন্ন সময়ে শিক্ষক নিবন্ধিত প্রার্থীরা নানাভাবে বঞ্চিত হয়ে অন্তত ২৫২টি মামলা করেন। গত বছরের ১৪ ডিসেম্বর ১৬৬টি মামলার রায় দেয় আদালত।

আদালতের রায়ে সাতটি নির্দেশনা দেয়া হয়। তার মধ্যে প্রধান কয়েকটি হলো- বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা নির্ধারণ করা, প্রতি বছর নিবন্ধন পরীক্ষার আয়োজন, তিন মাসের মধ্যে জাতীয়ভাবে নিবন্ধিত সব শিক্ষকের একটি মেধাতালিকা প্রণয়ন, এনটিআরসিএ কর্তৃক সুপারিশকৃত শিক্ষকদের যোগদান করতে দেয়া না হলে ৬০ দিনের মধ্যে সেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কমিটি বাতিল করা, সংশ্লিষ্ট বোর্ডের তত্ত্বাবধানে পুনরায় কমিটি গঠন করা।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোঃ জাবেদ আহমেদ বলছিলেন, আদালতের রায়ের পর নিবন্ধিতদের চাকরিতে যোগদানের বয়সসীমা নির্ধারণের প্রস্তাব দিয়ে আমাদের কাছে চিঠি পাঠিয়েছিল এনটিআরসিএ। তাদের প্রস্তাবের ভিত্তিতে আমরা সভা করেছি। সেখানে শিক্ষকদের যোগদানের বসয়সীমা ৩৫ করার সুপারিশ করা হয়েছে। এ সুপারিশে সবাই একমত হয়েছে। এমপিও নীতিমালার আলোকে নিবন্ধিত শিক্ষকদের যোগদানের বয়সসীমা ৩৫ করার সুপারিশ করা হয়েছে। আগামী সপ্তাহে চূড়ান্ত করা হবে।

তিনি আরও বলেন, সারাদেশের সকল বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক শূন্য পদে নিয়োগ দিতে পুরুষ-মহিলাদের আলাদা করে তালিকা তৈরি করতে এনটিআরসিএকে নির্দেশনা দেয়া হবে। শিক্ষামন্ত্রীর উপস্থিতিতে পরবর্তী সভা করা হবে। সেখানে সব বিষয় চূড়ান্ত করা হবে।

এনটিআরসিএর সদস্য মোঃ হুমায়ন কবির বলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয় নির্দেশনা দেয়, তা আমরা বাস্তবায়ন করি। আমরা রুটিন মাফিক কাজ করে থাকি। গত ১১ এপ্রিল আমরা আদালতের পূর্ণাঙ্গ রায়ের কপি পেয়েছি। রায়ে যেসব নির্দেশনা দেয়া হয়েছে তা বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া শুরু করতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, শিক্ষকদের যোগদানের বয়সসীমা নির্ধারণ করা হলে নিবন্ধিত প্রার্থীদের মেধাতালিকা প্রণয়নের কাজ শুরু করা হবে। যোগদানের এই বয়সসীমা নির্ধারণ হওয়ার ৯০ দিনের মধ্যে মেধাতালিকা তৈরি করা হবে। এরপর এনটিআরসিএ থেকে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগের জন্য সুপারিশ করা হবে।

এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বেতন ও বোনাস ॥ বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের মে মাসের বেতন-ভাতার অনুমোদন দেয়া হয়েছে রবিবার। বিকেলে বেতনের অর্থ নির্ধারিত ব্যাংকে জমা দেয়া হয়। আজ ( সোমবার) ঈদ বোনাসের ( বেতনের ২৫ শতাংশ) অর্থ ব্যাংকে জমা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

মাউশি উপ-পরিচালক মোঃ শফিকুল ইসলাম সিদ্দিকী (সাধারণ প্রশাসন) বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মাউশির অধীনস্থ স্কুল ও কলেজ শিক্ষক-কর্মচারীদের মে মাসের এমপিও (বেতন-ভাতার সরকারী অংশ) বেতনের আটটি চেক নির্ধারিত অনুদান বণ্টনকারী চারটি ব্যাংকের শাখায় পাঠানো হচ্ছে। আগামীকাল (আজ সোমবার) ঈদ-উল ফিতরের বোনাসের অর্থও ব্যাংকে জমা দেয়া হবে। শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন- বোনাসের অর্থ আগামী ১০ জুনের মধ্যে এ অর্থ উত্তোলন করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

জানা গেছে, এমপিও শিক্ষকদের বেতন-ভাতাদি বণ্টনকারী ব্যাংকগুলোর মধ্যে অগ্রণী, রূপালী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়, জনতা ও সোনালী ব্যাংকের স্থানীয় কার্যালয়ে এসব চেক হস্তান্তর করা হচ্ছে।
– See more at: http://www.dailyjanakantha.com/details/article/351167/%E0%A6%AC%E0%A7%87%E0%A6%B8%E0%A6%B0%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%80-%E0%A6%B8%E0%A7%8D%E0%A6%95%E0%A7%81%E0%A6%B2-%E0%A6%B6%E0%A6%BF%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%B7%E0%A6%95%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%AC%E0%A7%9F%E0%A6%B8%E0%A6%B8%E0%A7%80%E0%A6%AE%E0%A6%BE-%E0%A7%A9%E0%A7%AB-%E0%A6%95%E0%A6%B0%E0%A6%BE#sthash.utBmxx3G.dpuf

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *