মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৬, ২০১৮, ৩:০৯:২৯ অপরাহ্ণ
Home » বিনোদন » বিবাহবার্ষিকী, ভালোবাসা দিবস একান্তই দু’জনের

বিবাহবার্ষিকী, ভালোবাসা দিবস একান্তই দু’জনের

বিনোদন ডেস্ক:

টিভি নাটকের সাড়াজাগানো জুটি টনি ডায়েস ও প্রিয়া ডায়েস। এক সময় অভিনয় দিয়ে দর্শকদের মন জয় করেছেন টনি ডায়েস এবং প্রিয়া ডায়েস। বেশ কয়েক বছর হলো অভিনয় থেকে দূরে রয়েছেন তারা। আজ ১৪ ফেব্রুয়ারি দেশের এই জনপ্রিয় জুটির বিবাহ বার্ষিকী।

 

বিবার্তা টুয়েন্টিফোর ডটনেট পরিবারের পক্ষ থেকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা ডায়েস পরিবারকে।

 

২০০১ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারী ভালোবেসে বিয়ে করেছেন তারা। এই জুটি তাদের বিবাহবার্ষিকী পালন করছেন। টনি ও প্রিয়ার ভালোবাসার ঘরে একমাত্র মেয়ে অহনা রয়েছে। বর্তমানে টনি ও প্রিয়া তাদের মেয়েকে নিয়ে নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসে বসবাস করছেন।

মজার বিষয় হচ্ছে দূরে থাকলেও তিনি ভক্তদের খুব কাছে অবস্থান করছেন। কারণ আমেরিকার জীবন ও পথচলার সব স্মৃতি নিয়মিতই আপলোড করেন নিজের ফেসবুকে। আমেরিকার বিভিন্ন জায়গাতে বিভিন্ন সময় পরিবার নিয়ে ঘোরার ছবি, বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা সবই দেখা যায় তার প্রফাইলে। হাস্যজ্জল তাদের ছবিগুলো দেখলেই বোঝা যায় বেশ ভালো আছেন জনপ্রিয় এই তারকা দম্পতি।

 

টনি ডায়েস বলেন, আমরা দুজনে সব সময়ই খুব ছিমছাম থাকতে ভালোবাসি। জীবনটাকে আমি উপভোগ করতে চাই। বলতে গেলে মানুষ পৃথিবীতে খুব কম সময়ের জন্য থাকে। উপভোগ করটাই আমার কাছে প্রধান মনে হয়। সেটা যে কোনো ভাবেই হতে পারে। আর রঙিন জীবন … হা হা হা …! সেটা কেনা চায়! আর আমি চাই সবাইকে নিয়ে রঙিন থাকতে। খুব বেশী চাহিদা নেই।

 

ভ্যালেন্টাইনস ডে প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ইচ্ছে ছিলো ভ্যালেন্টাইনস ডে তে বিয়ে করবো। তার জন্য এনগেজমেন্টের পর এক বছর অপেক্ষা করেছিলাম। সাধারণত আমাদের দেশে মেয়েদের পরিবার অপেক্ষা করতে চায় না। তাড়াতাড়ি বিয়েটা সেরে ফেলে। এখনতো একদিনেই বিয়ে হয়ে যায়। পরে শুধু সামাজিকতার জন্য সবাই এক হয়। প্রতিবার অনেক আয়োজন থাকে। তবে এবার তেমন কিছু হচ্ছে না। কারণ এবছর ১৪ ফেব্রুয়ারী আমাদের রোজা শুরু হচ্ছে। এ্যাশ ওয়েডন্সে ডে। বাংলায় আমরা বলি ভর্সো বুধবার। পরবর্তী ৪০ দিন কোনো ধরনের জাকজমক অনু্ষ্ঠান কিংবা বেশী আনন্দ হবে না। কিছুটা ত্যাগস্বীকার করতে হয় ইস্টার সানডে পর্যন্ত। আমি খুব বেশী ধার্মিক মানুষ না। তবে সামাজিকতা কিংবা পারিবারিক মূল্যবোধকে প্রাধান্য দেই। তা নাহলে পরবর্তী প্রজন্ম শিখবে না।

 

টনি ডায়েস আরোও বলেন, ভালোবাসা আমার কাছে মনে হয় দুজনার পারস্পরিক সমঝোতা। শুধু মুখে ভালোবাসি বললেই হয় না। সেটা কর্ম দিয়ে প্রকাশ করতে হয়। চাওয়া পাওয়ার ‌অনেক কিছুই ছাড় দিতে হয়। খেয়াল রাখতে হয় পছন্দ অপছন্দের দিকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *