মঙ্গলবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৮, ১২:৫৯:২৪ পূর্বাহ্ণ
Home » আন্তর্জাতিক » নওয়াজকে মেয়েসহ বিমানবন্দরেই গ্রেপ্তারের প্রস্তুতি

নওয়াজকে মেয়েসহ বিমানবন্দরেই গ্রেপ্তারের প্রস্তুতি

অনলাইন ডেস্ক
নওয়াজ শরিফ ও তাঁর মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ। নওয়াজ শরিফ ও তাঁর মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ। গ্রেপ্তার হবেন জেনেও দেশে ফিরছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। আজ শুক্রবার তিনি লন্ডন থেকে পাকিস্তানের লাহোরে ফিরছেন। তাঁর সঙ্গে তাঁর মেয়ে মরিয়মও ফিরছেন। দেশে ফেরামাত্র বিমানবন্দর থেকে তাঁদের গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হতে পারে।গত সপ্তাহে নওয়াজ শরিফকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির আদালত।পানামা পেপারস কেলেঙ্কারিতে নাম থাকায় তিনবারের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী পদ থেকে সরে যেতে হয়েছিল। দেশের সর্বোচ্চ আদালত তাঁকে অযোগ্য ঘোষণা করেছিলেন। আদালত তাঁকে রাষ্ট্রীয় যেকোনো পদে আজীবন নিষিদ্ধ ঘোষণা করেন। পরে আদালতের রায়ে দলীয় প্রধানের পদও ছাড়তে হয় নওয়াজকে।
লন্ডনে চারটি বিলাসবহুল ফ্ল্যাট কেনাকে কেন্দ্র করে নওয়াজ শরিফের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়। দুর্নীতির দায়ে ৬ জুলাই নওয়াজ শরিফকে ১০ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাঁর মেয়ে মরিয়ম নওয়াজকে সাত বছর ও মরিয়মের স্বামী ক্যাপ্টেন সফদারকে এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। পাকিস্তানের অ্যাকাউন্টিবিলিটি কোর্ট ওই রায় ঘোষণা করেন। কারাদণ্ডাদেশের পাশাপাশি নওয়াজকে ৮০ লাখ ব্রিটিশ পাউন্ড ও মরিয়মকে ২০ লাখ ব্রিটিশ পাউন্ড জরিমানা করা হয়েছে। ক্যাপ্টেন সফদার গ্রেপ্তার হয়ে এখন কারাগারে।

গত বুধবার লন্ডনে নওয়াজ শরিফ তাঁর দল পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) দলের সমর্থকদের উদ্দেশে বলেন, ‘একটা সময় ছিল যখন আমরা বলতাম, রাষ্ট্রের ভেতর আরেক রাষ্ট্র। এখন সেটিকে বলা যায়—রাষ্ট্রের ওপর আরেক রাষ্ট্র। কারাগারের লৌহকপাট চোখের সামনে দেখতে পেলেও আমি পাকিস্তান যাচ্ছি।’

ধারণা করা হচ্ছে, নওয়াজ শরিফকে অভ্যর্থনা জানাতে হাজার হাজার সমর্থক বিমানবন্দরে উপস্থিত থাকবেন। তাঁর দেশে ফেরাকে কেন্দ্র দলের শত শত নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

৬৭ বছর বয়সী নওয়াজকে গত ৩০ বছর ধরে পাকিস্তানের শীর্ষ রাজনীতিকের একজন বলা হয়। তাঁর বিরুদ্ধে রায়ে সামরিক বাহিনী কলকাঠি নেড়েছে বলে অভিযোগ করছে তাঁর দল। পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) মতে, নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান নিয়ে দলটি সমালোচনা করায় এবং ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের নীতি গ্রহণ করায় সামরিক বাহিনী দলটির ওপর ক্ষেপে যায়।

ব্রিটিশ সাম্রাজ্য থেকে মুক্ত হওয়ার পর ৭০ বছরের স্বাধীনতার ইতিহাসের প্রায় অর্ধেক সময় জুড়েই দেশটি শাসন করেছে সামরিক বাহিনী। তবে নির্বাচন বা রাজনৈতিক প্রক্রিয়ায় ‘সরাসরি ভূমিকা’ রাখার বিষয়টি বরাবরই অস্বীকার করে আসছে সেনাবাহিনী।
সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে আগুয়ান নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন না নওয়াজ। তবে তাঁকে পাকিস্তানের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতাদের একজন বলে ধরা হয়, বিশেষ করে পাঞ্জাবে। পাকিস্তানের নির্বাচনে সবচেয়ে জনবহুল এই প্রদেশের গুরুত্ব অনেক বেশি।

২০১৫ সালে পানামা পেপারস কেলেঙ্কারিতে নাম আসে নওয়াজের। ওই সময় জানা যায়, বেশ কয়েকটি অফশোর কোম্পানির সঙ্গে নওয়াজ শরিফের ছেলেমেয়েদের যোগসূত্র রয়েছে। অভিযোগ আছে, এই কোম্পানিগুলোকে ব্যবহার করে বিদেশে অর্থ পাচার করা হয়েছে এবং বিদেশে নানা সম্পদ কেনা হয়েছে। আলোচনায় ছিল লন্ডনে কেনা এই বিলাসবহুল ফ্ল্যাটগুলোও। শেষ পর্যন্ত সেই ফ্ল্যাটের কারণেই কারাদণ্ড হলো নওয়াজ ও তাঁর মেয়ের।

নওয়াজ ও তাঁর মেয়ে মরিয়মকে বিমানবন্দর থেকে হেলিকপ্টারে করে কারাগারে নিয়ে যাওয়ার আবেদন জানানো হয়েছে। দেশটির জাতীয় জবাবদিহি সংস্থা ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টিবিলিটি ব্যুরোর (এনএবি) এ আবেদন সরকার অনুমোদন করেছে।
একটি সূত্রের বরাত দিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের জিও টিভি জানিয়েছে, লাহোরের আল্লামা ইকবাল বিমানবন্দর থেকে নওয়াজ শরিফ ও মরিয়ম নওয়াজকে ইসলামাবাদ বিমানবন্দরে হেলিকপ্টারে করে নেওয়ার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *