বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১৬, ২০১৮, ৯:০৬:৩৯ পূর্বাহ্ণ
Home » সারাদেশ » রাজশাহী » নওগাঁয় আম বাগানের গাছে গাছে গুটি আম বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

নওগাঁয় আম বাগানের গাছে গাছে গুটি আম বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

মোঃ খালেদ বিন ফিরোজ, নওগাঁ প্রতিনিধিঃ নওগাঁর আত্রাই উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলে আম গাছে মুকুল ঝরে যাওয়ার সাথে সাথে আম ফলের গুটিতে আরেক সৌন্দর্য্য তৈরি করেছে প্রতিটি বাগান বা বসত বাড়িতে। এ যেন আকাশের তারার মত সাজানো আম বাগানের গাছে গাছে গুটি আমের ফল সাজানো রয়েছে । বসন্তের শুরু বা তারও আগে থেকেই সারা দেশে দেখা দেয় প্রকৃতির আরেক সৌন্দর্যের মুর্ছনা ছড়ানো ফুল বা মুকুল।বাংলাদেশে জাতীয় ফল কাঁঠাল। যেটা আগত মাস থেকে দেখা যাবে। তারই ভিতরে আরেক সুস্বাদু ফলের গাছ আম।
যেটা বর্তমান প্রকৃতির মাঝে এক সমারোহ সৃষ্টি। করেছে। সেই আম গাছে আম ফল ধরনে প্রথম দেখা যায় ফুল বা মুকুল। গ্রামাঞ্চলে অনেকেই আঞ্চলিক ভাষায় বলে থাকে বৌউল /ফুল বা আমের মুকুল। আমগাছে মুকুল আসার পর আস্তে আস্তে গুটি বাধা শুরু করে। প্রথমেই আমের মুকুল জানান দিতে শুরু করে মধু মাস সমাগত। নির্ধারিত সময়ের ভিতরেই আমের মুকুল আসতে শুরু করে এবং একপর্যায়ে শেষ হয়ে যায়। দেখা দেয় আম ফলের আকৃতিতে গুটি গুটি ফল। দেখতে সৌন্দর্য্যে পরিপূর্ণতা পায় আম বাগান ও গাছগুলো। সম্প্রতি গত দু মাসের প্রথম দিকে প্রতিটি গাছেই পুরোপুরিভাবে মুকুল ফুটতে শুরু করেছিল । যেসব গাছে আগাম মুকুল দেখা দিয়েছিল তার বাগান মালিকরা পরিচর্যা শুরু করে দিয়েছিলেন রীতিমত। তাছাড়া মানুষের বসত ভীটার দিকে তাকালেও আম গাছের মুকুলে দৃষ্টি কেড়েনিত । যার সবগুলোই এখন দৃষ্টি কাড়তে শুরু করেছে গুটি আমের ফলে। বড় ধরনের কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ না ঘটলে এ বছর আমের বাম্পার ফলন হবে বলে আশা করছেন চাষি, বাগান মালিক ও বসতভিটায় লাগানো গ্রামাঞ্চলের মানুষ ।
সারা দেশের ন্যায় নওগাঁ জেলার সকল উপজেলায় আম গাছের গুটি ফল যেন সৃষ্টি করেছে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের এক অপরূপ দৃশ্য। যেমন দেখা যায় আম বাগান চাষীদের তেমনি দেখা যায় মানুষের বসত ভিটায় । সেই অনুযায়ী আত্রাই উপজেলার ০৮ টি ইউনিয়নে কম বেশি আমের চাষ দেখা যায়। উপজেলার বান্দাইখাড়া, হাটকালুপাড়া,আহসানগঞ্জ,বিশা, মনিহারি,কালিকাপুর,ভোঁপাড়াসহ পার্শ্ববর্তী উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বাণিজ্যিকভাবে প্রায় সব জাতের আম উৎপাদন হচ্ছে। লাভজনক হওয়ায় প্রতি বছর কৃষি জমিতে বাড়ছে আমের আবাদ। উপজেলার বান্দাইখাড়া সহ বিভিন্ন অঞ্চলের আম চাষিরা জানান,এবছর শীতের তীব্রতা কম থাকলেও গেল কয়েক সপ্তাহ থেকেই আম গাছে মুকুল ঝরে আমের গুটি আসতে শুরু করেছে। যদিও মুকুলের অবস্থান থেকে তেমন একটা ঝরে পড়ে ক্ষতি হয়নি। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবার গাছগুলোতে গুটি আম থেকে পরিপূর্ণ আমের সমারহ ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে। আম চাষিরা আশান্বিত আবহাওয়া অনুকূল থাকলে নিশ্চিতভাবে আমের ভালো ফলন হবে। উপজেলার প্রতিটি আম চাষিরা সকল প্রকার যতœ সহকারে বাগানের গাছের দেখা দেওয়া গুটি ফল আমে পরিচর্যা নিতে দেখা গেছে।গুটি আমের রোগমুক্ত ও পরিপূর্ণতা আনতে আম গাছের মাথাগুলোকে পোকা-মাকড়ের আক্রমণ থেকে রক্ষার জন্য ওষুধ স্প্রে করা হয়েছে ।প্রায় গাছেই আমের গুটিতে ভরে গেছে। পরিপূর্ণ আম ফল তৈরি হওয়ার পর গাছগুলো মাটিতে নত হয়ে পড়বে ফল ভারে বলে মন্তব্য করছে একাধিক আম চাষিরা।এমনকি আম ফল পরিপূর্ণ আকৃতি দেখা দিলে অতিরিক্ত চাপে গাছের ডালে ঠেস দিয়ে রাখতেও হতে পারে বলে মনে করছেন অনেক আম চাষিরা। উপজেলার প্রায় আম চাষিরা আশা প্রকাশ করছেন এবার আমের ফলন ভালো হবে। আত্রাই উপজেলাসহ প্রতিটি ইউনিয়নের প্রতি বছর আম বাগানের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে এবং লাভবানও হচ্ছে অনেকেই। বিশেষ করে ল্যাংড়া,হিমসাগর,আমরুপালি,রানীভোগ,লতাবাহারী,গোপালভোগ,ক্ষীরসাপাত, আশ্বিনা ও অন্যান্য জাতের আম চাষ বসতভিটা ও আম চাষিদের বাগানে বেশি দেখা যাচ্ছে ।গুটি আমের ধরনে আম বাগান যেন আকাশের তারার ন্যয় ফুটে উঠেছে প্রতিটি গাছ। সৃষ্টি হয়েছে এক অন্য রকম সৌন্দর্য্য প্রতিটি আম গাছ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *