রবিবার, নভেম্বর ১৮, ২০১৮, ৮:৪৪:৫১ পূর্বাহ্ণ
Home » অপরাধ » দৌলতপুরে ঘাট নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ আহত ২

দৌলতপুরে ঘাট নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ আহত ২

দৌলতপুর প্রতিনিধি
কুষ্টিয়া দৌলতপুর উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের ভাগজোত এলাকায় শনিবার অনুমানিক সকাল ১০ টার সময় ঘাট দখল কে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগ এর দুই গুরুপে সংঘর্ষ হয়েছে, পুলিশ এসে বিষয়টি নিয়ন্ত্রণে আনে । সংঘর্ষে দুই জন আহত হয়েছে, একটি মটর সাইকেল পুড়িয়ে দিয়েছে। আহতরা হলেন ভাগজোত এলাকার মতিউরের ছেলে সোহেল রানা বুলেট ও ইসাহকের ছেলে বাবু । এ বিষয়ে বর্তমান ঘাট মালিক সোহেল রানা বুলেটের আব্বা মতিউর রহমান জানান , আমার ছেলে গতবছর চিলমারি ঘাট ডাকে পায়। এবার জেলা পরিষদে তারা পাইলে আমরা হাইকোর্টে রিট করি, আমরা রায় পাই। আজ আগের ডাকের সময় শেষ হবে এবং আজ থেকে এখন এক মাস কোর্টের রায় অনুযায়ী আমাদের ঘাট থাকবে। হঠাৎ আজ চেয়ারম্যান সিরাজ সহ তার দলবল নিয়ে ঘাটে হামলা চালায় এবং আমার ছেলে গুরুতর আহত হয়। সে বর্তমানে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। আমাদের ব্যবহৃত ১ টি মটোরসাইকেল আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেয় ও দু’টি মটোরসাইকেল ভাঙ্গচুর করে তিনি আর দাবি করেন চেয়ারম্যান নিজে নেতৃত্ব দিয়ে যে হামলা করিয়েছে তার ভিড়িও আমার মুঠোফোনে ধারন করা আছে । এ বিষয়ে ঘাটের মাঝি মহন দফাদার ও তুসার জানান আমরা ঘাটে বসে ছিলাম হঠাৎ চেয়ারম্যান তার সন্ত্রাসী বাহিনী সহ প্রায় ৫০ জন এসে সোহেলের উপর হামলা চালায় এবং গাড়ী ভাঙ্গচুর করে গাড়ীতে আগুন লাগিয়ে দেয়। এ বিষয়ে রামকৃষ্ণ পুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সিরাজ জানান গত এক বছর সোহেল রানা বুলেট ঘাট ডাক পাই, এই বছরে আমরা ও টেন্ডার জমা করি এবং আমরা ডাকে ঘাট পাই। তাদের ডাক আজ রাত বারটায় শেষ হবে তাই আমাদের লোক জন আজ তাদের মাচার পাশে মাচা করতে গেলে বুলেট গুরুপ আমাদের লোক জনের উপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। তিনি আর জানান সোহেল দাবি করছেন আমি কোর্টের অনুমতি পেয়েছি, এখন এক মাস ঘাট আমার থাকবে কিন্তু কোন কাগজ সে আমাদের দেখাতে পারেনি। তিনি আর জানান আমরা তাদের কোন গাড়ী ভাঙ্গচুর ও কোন গাড়ীতে আগুন দেয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *