শুক্রবার, অক্টোবর ১৯, ২০১৮, ৩:৫৫:৫৭ পূর্বাহ্ণ
Home » খেলাধুলা » দু’দিন বাদে ‘মুক্ত’ হচ্ছেন আশরাফুল

দু’দিন বাদে ‘মুক্ত’ হচ্ছেন আশরাফুল

অনলাইন ডেস্ক :
পাঁচ বছর ধরে ক্যালেন্ডারের পাতা ওলটাচ্ছেন আশরাফুল। স্থির চোখে তাকিয়ে থেকেছেন ১৩ আগস্ট ২০১৮’র দিকে। চোখের কোনটা হয়তো পানিতে একটু টলমলে হয়ে উঠেছে। আর জ্বলজ্বল করে ওঠা চোখে উজ্জ্বল হয়ে উঠেছে লাল-সবুজের জার্সি আবার গায়ে চাপানোর স্বপ্ন।
আয়ু রেখা ধরে অ্যাশের বয়স ৩৪ বছরে হেঁটে চলেছে। আন্তর্জাতিক ম্যাচে অভিষেকের বয়স ১৭ হয়ে গেছে। কিন্তু পাঁচ বছর বাংলাদেশের সোনালি প্রজন্মের ক্রিকেটারদের সংস্পর্শ মিস করেছেন তিনি। তবে সাবেক অধিনায়ক স্বপ্ন দেখেন আবার জাতীয় দলে ফেরার।
২০১৩ সালে বিপিএলে ম্যাচ পাতানোর অভিযোগ ওঠে বাংলাদেশ ব্যাটসম্যান আশরাফুলের নামে। এরপর তিনি তার দোষও স্বীকার করেন। ভেবেছিলেন স্বীকারোক্তি হয়তো তার সাজা কিছুটা কমাবে। কিন্তু সব ধরনের ক্রিকেট থেকে পাঁচ বছরের জন্য নিষেধাজ্ঞা পান তিনি। পরে অবশ্য লিস্ট ‘এ’ এবং প্রথম শ্রেণীর ম্যাচ খেলার অনুমতি মেলে আশরাফুলের।
আর খেলার মধ্যে থাকার ওই সুযোগ আশরাফুল ভালো মতো কাজে লাগানোর চেষ্টা করেছেন। প্রথমে আট বছরের নিষেধাজ্ঞা পাওয়া আশরাফুল আপিল করে তিন বছরের সাজা কম পান। এরপর ২০১৬ সালে ঘরোয়া লিগ খেলার সুযোগ আসে তার সামনে। তবে বিপিএলের মতো ফ্রাঞ্চাইজি ভিত্তিক টুর্নামেন্টে খেলার দরজা খোলেনি তার জন্য।
আশরাফুল ঘরোয়া লিগে দুই মৌসুম মাঠে নেমেছেন। এরমধ্যে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে ২০১৭-১৮ মৌসুমে লিস্ট ‘এ’ ম্যাচে পাঁচটি সেঞ্চুরি পেয়েছেন তিনি। ঘরোয়া লিগে লিস্ট এ ক্রিকেটে এক মৌসুমে দ্বিতীয় ব্যাক্তি হিসেবে পাঁচ সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েন তিনি। তার আগে কেবল দক্ষিণ আফ্রিকার আলভারো পিটারসন এই রেকর্ড গড়েন।
তবে প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে আশরাফুল খুব একটা ভালো করতে পারেননি। ১৩ ম্যাচে রান করতে পেরেছেন ২১.৮৫ গড়ে। সেঞ্চুরি পেয়েছেন একটি। তবে এই বয়সেও বাংলাদেশ দলে ঢোকার প্রতিযোগিতায় নিজেকে সামিল করতে চান আশরাফুল।
তিনি বলেন, ‘অনেক দিন ধরে ১৩ আগস্টের অপেক্ষায় আছি। পাঁচ বছরের বেশি হলো আমি আমার ভুল স্বীকার করেছি। দুই মৌসুম ধরে ঘরোয়া লিগ খেললাম। এখন জাতীয় দলের জন্য আমাকে বিবেচনা করতে আর কোন বাধা থাকবে না। আবার বাংলাদেশের হয়ে খেলতে পারা হবে আমার জন্য অনেক বড় অর্জন। এখন আমি পারফরমেন্স দিয়ে নির্বাচকদের নজরে আসতে চাই।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *