সোমবার, জুলাই ১৬, ২০১৮, ১১:৪১:০০ অপরাহ্ণ
Home » অন্যান্য » টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে বিপুল পরিমান চোলাই মদ ও মদ তৈরীর সরঞ্জামসহ মাদক ব্যবসায়ী সামাদ গ্রেফতার

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে বিপুল পরিমান চোলাই মদ ও মদ তৈরীর সরঞ্জামসহ মাদক ব্যবসায়ী সামাদ গ্রেফতার

মীর আনোয়ার হোসেন টুটুল,
চোলাই মদের কারখানায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান চোলাই মদ ও মদ তৈরীর সরঞ্জামসহ মাদক ব্যবসায়ী আব্দুস সামাদ(৫৫) পুলিশ গ্রেফতার করেছে।উদ্ধার করা হয়েছে মদ বিক্রির সারে পাঁচ হাজার টাকা।আজ বৃহস্পতিবার ভোর রাতে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার বাওয়ার কুমারজানি উত্তরপাড়া গ্রামের সামাদ মিয়ার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে এ বিপুল পরিমান চোলাই মদ উদ্ধার করে মির্জাপুর থানা পুলিশ।
আজ বৃহস্পতিবার মির্জাপুর থানার পুলিশর অফিসার এএসআই মো. সালাউদ্দিন জানান, দীর্ঘ দিন ধরে বাওয়ার কুমারজানি উত্তরপাড়া গ্রামের আব্দুস সামাদ মিয়ার বাড়িতে দেশীয় প্রযুক্তিতে চোলাই মদ তৈরী হয়ে আসছে বলে তারা সোর্সের মাধ্যমে জানতে পারেন।সোর্সের মাধ্যমে খবর পেয়ে পুলিশ কয়েক দিন ধরে ঘটনার সত্যতা যাচাই করার জন্য মাঠে নামেন।গতকাল রাতে পুলিশ অফিসার এসআই মো. সোহেল কুদ্দুছ ও এএসআই মো. দেলোয়ার হোসেনসহ এক দল পুলিশ নিয়ে ঐ বাড়ির চারপাশ ঘেরাও করে।দীর্ঘক্ষন চেষ্টার পর তারা বাড়ির চারপাশের টিনের বেড়া ভেঙ্গে বাড়িতে প্রবেশ করে চোলাই মদের কারখানার সন্ধান পান এবং ঘটনার সঙ্গে জড়িত আব্দুস সামদকে গ্রেফতার করে।এ সময় বাড়ির বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে প্রায় দেড়শ লিটার দেশীয় তৈরী চোলাই মদ ও মদ তৈরীর বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করে।উদ্ধারকৃত দেড়শ লিটার মদের মধ্যে অধিকাংশ চোইল মদ পচে দুর্গন্ধ হয়ে যাওয়ায় পুলিশ প্রায় ৭৫ লিটার চোলাই মদ জব্দ তালিকায় রেখেছেন।বাকী পচা মদ ফেলে দেন।তবে ঘটনার সঙ্গে জড়িত আব্দুস সামাদের অপর সহযোগি মাদক ব্যবসায়ী মোশারফ হোসেন(৪৫) পালিয়ে যায় বলে পুলিশ জানিয়েছেন।
এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এ কে এম মিজানুল হক মিজানরে সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, প্রচলিত আইনে মামলার পর মাদক ব্যবসায়ী আব্দুস সামাদকে কোর্টে চালান দেওয়া হয়েছে।পলাতক অপর মাদক ব্যবসায়ী মোশারফকে গ্রেফতারে পুলিশ াভিযানে নেমেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *