শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৮, ৮:৫১:৫২ অপরাহ্ণ
Home » সারাদেশ » ময়মনসিংহ » গৌরীপুরে চুরির অভিযোগে খুঁটিতে বেঁধে এক কিশোরকে নির্যাতনের অভিযোগ

গৌরীপুরে চুরির অভিযোগে খুঁটিতে বেঁধে এক কিশোরকে নির্যাতনের অভিযোগ

গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা ॥
ময়মনসিংহের গৌরীপুরে বৃহস্পতিবার (১২এপ্রিল) চুরির অভিযোগে খুঁটিতে বেঁধে এক কিশোরকে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। নির্যাতনকারী দম্পতির কবল থেকে এসআই সাইদুর রহমান নির্যাতিত কিশোর রকি মোহাম্মদ (১৪) কে উদ্ধার করেছে। সে পৌর শহরের গোলকপুর এলাকার মরজত আলীর পুত্র।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, গোলকপুর মোড়ের বাজারে দোকানদার মতি মিয়া ও তার স্ত্রী শিরিনা আক্তার চুরির অভিযোগ এনে একই এলাকার রকি মোহাম্মদকে (১৪) খুঁটিতে বেঁধে প্রকাশ্যে নির্যাতন চালায়। এ সময় প্রতিবেশীরা নির্যাতনের প্রতিবাদ ও নির্যাতন বন্ধ করতে বললেও ওই দম্পতি কারো কথা না শোনে নির্যাতন চালিয়ে যায়। নির্যাতিত রকি’র মা ফারজানা আক্তার লিনদা (৩৫) পুত্রকে মুক্ত করতে কয়েকদফা অনুনয়-বিনয় করলেও পুত্রকে মুক্ত করতে পারেননি। শিরিনা আক্তার ও মতি মিয়া বারবার চিৎকার করে বলতে থাকেন, “১০হাজার টাকা দে, নইলে মেরেই ফেলবো।”
এলাকাবাসী ও সংবাদকর্মীরা ঘটনাটি গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ দেলোয়ার আহম্মদকে জানালে তিনি গৌরীপুর থানার সাবইন্সপেক্টর মো. সাইদুর রহমানকে ঘটনাস্থলে পাঠান। এসময় ওই দম্পতি পুলিশের উপস্থিতিতেও নির্যাতন চালাতে থাকেন। তখন পুলিশ নির্যাতিত কিশোরকে উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়ার সময়ও পুলিশকে অশ্লীলভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে তাঁরা। শিরিনা আক্তার জানায়, আব্দুস সাত্তার ও রকিকে ৩দিনে আগে দোকানে বসিয়ে রেখে যায়। এসে দেখেন ক্যাশের ১০হাজার টাকা নেই। এ টাকা রকিই চুরি করেছে।
গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ দেলোয়ার আহম্মদ জানান, নির্যাতনের শিকার কিশোর রকি মোহাম্মদকে উদ্ধার করা হয়েছে। তার পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।
উল্লেখ্য ২০১৭সালের ২৫ সেপ্টেম্বর পানি উত্তোলনের পাম্প চুরির অপরাধে খুঁটিতে বেঁধে ময়মনসিংহের নাটকঘর লেনের রেলওয়ে বস্তির মো. শিপন মিয়ার পুত্র টোকাই সাগর মিয়া (১৬) উপজেলার চরশ্রীরামপুর এলাকায় প্রকাশ্যে পিটিয়ে হত্যা করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *