মঙ্গলবার, জুন ১৯, ২০১৮, ১:০৭:০৯ পূর্বাহ্ণ
Home » জাতীয় » গত বছর সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছে ৭৩৯৭ জন

গত বছর সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছে ৭৩৯৭ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

২০১৭ সালে সারাদেশে ৪ হাজার ৯৭৯টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ হাজার ৩৯৭ জন প্রাণ হারিয়েছে এবং ১৬ হাজার ১৯৩ জন আহত হয়েছে। আর এ সংখ্যা ২০১৬ সালের চেয়ে অনেক বেশি। বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির পর্যবেক্ষণে এ তথ্য উঠে এসেছে।

ঢাকা রির্পোটার্স ইউনিটি মিলনায়তনে ‘সড়ক দুর্ঘটনা পর্যবেক্ষণ রিপোর্ট-২০১৭’ প্রকাশ উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোঃ মোজাম্মেল হক চৌধুরী এ তথ্য তুলে ধরেন।

দেশের জাতীয়, আঞ্চলিক ও অনলাইন সংবাদপত্রে প্রচারিত সড়ক দুর্ঘটনার সংবাদ মনিটরিং করে এই প্রতিবেদন তৈরি করেছে সংগঠনটি। এতে দেখা গেছে, বিদায়ী ২০১৭ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ১২ মাসে ছোট-বড় চার হাজার ৯৭৯টি সড়ক দুর্ঘটনা সংঘটিত হয়েছে। এতে সর্বমোট ২৩ হাজার ৫৯০ জন যাত্রী, চালক ও পরিবহন শ্রমিক সড়ক দুর্ঘটনায় হতাহত হয়েছে। এসব দুর্ঘটনায় মারা গেছে সর্বমোট সাত হাজার ৩৯৭ জন, আহত হয়েছে ১৬ হাজার ১৯৩ জন।

এর মধ্যে হাত, পা বা অন্য কোনো অঙ্গ হারিয়ে চিরতরে পঙ্গু হয়েছে এক হাজার ৭২২ জন। এইসব দুর্ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ দাঁড়াচ্ছে জিডিপির প্রায় দেড় থেকে দুই শতাংশ।

এ সময় ১২৪৯টি বাস, ১৬৩৫টি ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান, ২৭৬টি হিউম্যান হলার, ২৬২টি কার, জীপ, মাইক্রোবাস, ১০৭৪টি অটোরিক্সা, ১৪৭৫টি মোটরসাইকেল, ৩২২টি ব্যাটারি চালিত রিক্সা, ৮২৪টি নছিমন করিমন দুর্ঘটনার কবলে পড়ে।

সংগঠিত দুর্ঘটনার ৪২.৫ শতাংশ পথচারীকে চাপা, ২৫.৭ শতাংশ মুখোমুখি সংঘর্ষ, ১১.৯ শতাংশ খাদে পড়ে, ২.৮ শতাংশ চাকায় ওড়না পেচিয়ে সংগঠিত হয়।

সড়ক দুর্ঘটনা পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদনটি পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, ২০১৬ সালে চার হাজার ৩১২টি সড়ক দুর্ঘটনায় ছয় হাজার ৫৫ জনের মৃত্যু ও ১৫ হাজার ৯১৪ জন আহত হয়েছিল। এতে দেখা গেছে, ২০১৬ সালের তুলনায় ২০১৭ সালে মোট দুর্ঘটনা ১৫ দশমিক ৫ শতাংশ, নিহত ২২ দশমিক ২ শতাংশ, আহত ১ দশমিক ৮ শতাংশ বেড়েছে।

২০১৭ সালে সারাদেশে ৪ হাজার ৯৭৯টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ হাজার ৩৯৭ জন প্রাণ হারিয়েছে এবং ১৬ হাজার ১৯৩ জন আহত হয়েছে। আর এ সংখ্যা ২০১৬ সালের চেয়ে অনেক বেশি। বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির পর্যবেক্ষণে এ তথ্য উঠে এসেছে।

ঢাকা রির্পোটার্স ইউনিটি মিলনায়তনে ‘সড়ক দুর্ঘটনা পর্যবেক্ষণ রিপোর্ট-২০১৭’ প্রকাশ উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোঃ মোজাম্মেল হক চৌধুরী এ তথ্য তুলে ধরেন।

দেশের জাতীয়, আঞ্চলিক ও অনলাইন সংবাদপত্রে প্রচারিত সড়ক দুর্ঘটনার সংবাদ মনিটরিং করে এই প্রতিবেদন তৈরি করেছে সংগঠনটি। এতে দেখা গেছে, বিদায়ী ২০১৭ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ১২ মাসে ছোট-বড় চার হাজার ৯৭৯টি সড়ক দুর্ঘটনা সংঘটিত হয়েছে। এতে সর্বমোট ২৩ হাজার ৫৯০ জন যাত্রী, চালক ও পরিবহন শ্রমিক সড়ক দুর্ঘটনায় হতাহত হয়েছে। এসব দুর্ঘটনায় মারা গেছে সর্বমোট সাত হাজার ৩৯৭ জন, আহত হয়েছে ১৬ হাজার ১৯৩ জন।

এর মধ্যে হাত, পা বা অন্য কোনো অঙ্গ হারিয়ে চিরতরে পঙ্গু হয়েছে এক হাজার ৭২২ জন। এইসব দুর্ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ দাঁড়াচ্ছে জিডিপির প্রায় দেড় থেকে দুই শতাংশ।

এ সময় ১২৪৯টি বাস, ১৬৩৫টি ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান, ২৭৬টি হিউম্যান হলার, ২৬২টি কার, জীপ, মাইক্রোবাস, ১০৭৪টি অটোরিক্সা, ১৪৭৫টি মোটরসাইকেল, ৩২২টি ব্যাটারি চালিত রিক্সা, ৮২৪টি নছিমন করিমন দুর্ঘটনার কবলে পড়ে।

সংগঠিত দুর্ঘটনার ৪২.৫ শতাংশ পথচারীকে চাপা, ২৫.৭ শতাংশ মুখোমুখি সংঘর্ষ, ১১.৯ শতাংশ খাদে পড়ে, ২.৮ শতাংশ চাকায় ওড়না পেচিয়ে সংগঠিত হয়।

সড়ক দুর্ঘটনা পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদনটি পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, ২০১৬ সালে চার হাজার ৩১২টি সড়ক দুর্ঘটনায় ছয় হাজার ৫৫ জনের মৃত্যু ও ১৫ হাজার ৯১৪ জন আহত হয়েছিল। এতে দেখা গেছে, ২০১৬ সালের তুলনায় ২০১৭ সালে মোট দুর্ঘটনা ১৫ দশমিক ৫ শতাংশ, নিহত ২২ দশমিক ২ শতাংশ, আহত ১ দশমিক ৮ শতাংশ বেড়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *