মঙ্গলবার, অক্টোবর ২৩, ২০১৮, ২:৪০:১৯ অপরাহ্ণ
Home » সারাদেশ » খুলনা » খালেক-মঞ্জুসহ ৫ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল উৎসবে মেতেছিলেন কাউন্সিলর প্রার্থীরা

খালেক-মঞ্জুসহ ৫ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল উৎসবে মেতেছিলেন কাউন্সিলর প্রার্থীরা

খুলনা থেকে তিতাস চক্রবর্তী ॥ উৎসবমুখর পরিবেশে খুলনা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে বিভিন্ন দলের মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা নির্বাচন কমিশনের কাছে তাদের মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত এ সব প্রার্থীরা তাদের নেতা-কর্মী সমর্থকদের নিয়ে খুলনা মহনগরীরর নুর নগরে অবস্থিত নির্বাচন কমিশনের কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন। এ সময় নেতা-কর্মীদের পদভারে নির্বাচন কমিশন কার্যালয় উৎসব মুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়। দুপুরের পর আওয়ামীলীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেক ও বিএনপি সমর্থিত মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু পৃথকভাবে মনোনয়নপত্র জমা দেন। এসময়ে তারা দুজনই জয়ের ব্যাপারে আশাবাদ ব্যাক্ত করেন।
আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী সদ্য পদত্যাগকারী সংসদ সদস্য খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক নেতা-কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে দুপুর ২টা ২০ মিনিটের সময় মেয়র পদে তাঁর মনোনয়নপত্র জমা দেন। এ সময় মেয়র প্রার্থী খালেকের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় নেতা এস এম কামাল, নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি কাজি আমিনুল হক, প্রধানমন্ত্রীর চাচাতো ভাই শেখ সোহেল, সদর থানা সভাপতি সাইফুল ইসলাম, নগর যুবলীগের আহবায়ক সরদার আনিছুর রহমান পপলু, সোনাডাঙ্গা থানা সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বুলু বিশ্বাসসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ। অপরদিকে বিকাল ৩টাা ৪০ মিনিটের দিকে দলীয় নেতা-কর্মী সমর্থকদের নিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন বিএনপি’র মেয়র প্রার্থী নগর বিএনপি’র সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম মঞ্জু। এ সময় তাঁর সাথে উপস্থিত ছিলেন. সাবেক সংসদ সদস্য সৈয়াদা নার্গিস আলী, নগর বিএনপি’র সহ-সভাপতি সেকেন্দার জাফরউল্লাহ খান সাচ্চু, যুগ্ম সম্পাদক তারকুল ইসলাম, সোনাডাঙ্গা থানা বিএনপি’র আছাদুজ্জামান মুরাদ, মহিলা দলের নেত্রী রেহানা বেগমসহ ২০ দলীয় জোটের নেতা-কর্মীরা।
এছাড়া বেলা পৌনে ১টার দিকে দলের নেতা-কর্মীদের নিয়ে মেয়র পদে ইসলামী আন্দোলনের নগর সভাপতি অধ্যক্ষ মাওঃ মুজ্জাম্মিল হক ও বিকেল ৩টা ২৩ মিনিটে জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী এস এম শফিকুর রহমান মনোনয়নপত্র জমা দেন। এর আগে গত বুধবার মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন সিপিবি’র নেতা মিজানুর রহমান বাবু।
এদিকে আওয়ামীলীগের কউিন্সিলর প্রার্থী যারা মনোয়ন জমা দিলেন তারা হলেন, কেসিসির ১ নম্বর ওয়ার্ডে শাহাদাৎ মিনা, ২ নম্বর ওয়ার্ডে মো. সাকিল আহমেদ, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে মাস্টার আব্দুস সালাম, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে মো. গোলাম রাব্বানী টিপু, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে মো. হারুন অর রশিদ, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে এস এম ওয়াজেদ আলী মজনু, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে শেখ সেলিম আহমেদ, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে মো. সাহিদুর রহমান, ৯ নম্বর ওয়ার্ডে মোল্লা হায়দার আলী, ১০ নম্বর ওয়ার্ডে ডা. এস এম সায়েম মিয়া, ১১ নম্বর ওয়ার্ডে মুন্সি আব্দুল ওয়াদুদ (মুক্তিযোদ্ধা), ১২ নম্বর ওয়ার্ডে মো. আসলাম খান মুরাদ, ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে এস এম খুরশীদ আলম টোনা, ১৪ নং ওয়ার্ডে শেখ মোশাররফ হোসেন, ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে মো. আমিনুল ইসলাম মুন্না, ১৬ নং ওয়ার্ডে শেখ আবিদ উল্লাহ, ১৭নং ওয়ার্ডে মনিরুজ্জামান সাগর, ১৯ নং ওয়ার্ডে হাজী মোতালেব মিয়া, ২০ নং ওয়ার্ডে চ. ম মুজিবর রহমান, ২১ নম্বর ওয়ার্ডে শামছুজ্জামান মিয়া স্বপন, ২২ নম্বর ওয়ার্ডে কাজী আবুল কালাম আজাদ বিকু, ২৩ নং ওয়ার্ডে ফয়েজুল ইসলাম টিটো, ২৪ নং ওয়ার্ডে এ এন এম মাঈনুল ইসলাম নাসির, ২৫নং ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর আলী আকবর টিপু, ২৬নং ওয়ার্ডে শেখ আব্দুল আজিজ, ২৭ নং ওয়ার্ডে সাবেক কাউন্সিলর জেড এ মাহমুদ ডন, ২৮নং ওয়ার্ডে সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র আজমল আহমেদ তপন, ২৯ নং ওয়ার্ডে ফকির মো. সাইফুল ইসলাম, ৩০ নং ওয়ার্ডে এস এম মোজাফফর রশিদী রেজা, এবং ৩১ নম্বর ওয়ার্ডে নগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম আসাদুজ্জামান রাসেল। সংরক্ষিত ১ নম্বর ওয়ার্ডে ফাতেমা তুজ জোহরা, ২ নম্বর ওয়ার্ডে সাহিদা বেগম, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে রেহানা গাজী, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে পারভীন আক্তার, ৫ ওয়ার্ডে এ্যাড. মেমরী সুফিয়া রহমান শুনু, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে আমেনা হালিম বেবী, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে মাহমুদা বেগম, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে কনিকা সাহা, ৯ নম্বর ওয়ার্ডে নিভানা পারভীন এবং ১০ নম্বর ওয়ার্ডে লুৎফুন নেছা লুৎফা।
বিএনপির কউিন্সিলর প্রার্থী যারা মনোয়ন জমা দিলেন তারা হলেন, ১ নং ওয়ার্ডে মোঃ মহিউদ্দিন, ২ নং ওয়ার্ডে সাইফুল ইসলাম, ৩ নং ওয়ার্ডে শেখ গাউস হোসেন, ৫ নং ওয়ার্ডে সাজ্জাদ হোসেন তোতন, ৬ নং ওয়ার্ডে শামসুদ্দিন প্রিন্স, ৭ নং ওয়ার্ডে সুলতান মাহমুদ পিন্টু, ৮ নং ওয়ার্ডে ডালিম হাওলাদার, ৯ নং ওয়ার্ডে শেখ জাহিদুল ইসলাম, ১০ নং ওয়ার্ডে শেখ ফারুক হিল্টন, ১১ নং ওয়ার্ডে সরদার ইউনুস আলী, ১২ নং ওয়ার্ডে এইচ এম সালেক, ১৩ নং ওয়ার্ডে ইমতিয়াজ আলম বাবু, ১৪ নং ওয়ার্ডে শেখ আবুল কালাম, ১৫ নং ওয়ার্ডে আব্দুর রহমান ডিনো, ১৬ নং ওয়ার্ডে শেখ জামিরুল ইসলাম, ১৭ নং ওয়ার্ডে শেখ হাফিজুর রহমান, ১৮ নং ওয়ার্ডে হাফিজুর রহমান মনি, ১৯ নং ওয়ার্ডে আশফাকুর রহমান কাকন, ২০ নং ওয়ার্ডে গাউসুল আযম, ২১ নং ওয়ার্ডে মোল্লা ফরিদ আহমেদ, ২২ নং ওয়ার্ডে মোঃ মাহবুব কায়সার, ২৩ নং ওয়ার্ডে মোঃ সাব্বির হোসেন, ২৪ নং ওয়ার্ডে শমসের আলী মিন্টু, ২৫ নং ওয়ার্ডে আনিসুর রহমান আরজু, ২৬ নং ওয়ার্ডে মনিরুল ইসলাম, ২৭ নং ওয়ার্ডে হাসান মেহেদী রিজভী, ২৭ নং ওয়ার্ডে ওয়াহিদুর রহমান দীপু, ২৯ নং ওয়ার্ডে গিয়াসউদ্দিন বনি এবং ৩১ নং ওয়ার্ডে এইচ এম আসলাম।
এছাড়া সংরক্ষিত ওয়ার্ডে বিএনডির যারা মনোনয়ন জমা দিয়েছেন তারা হলেন, ১ নং ওয়ার্ডে লায়লা আরজুমান বানু, ৩ নং ওয়ার্ডে পাপিয়া রহমান পারু, ৪ নং ওয়ার্ডে আফরোজা জামান, ৫ নং ওয়ার্ডে আনজিরা খাতুন, ৬ নং ওয়ার্ডে হাসনা হেনা, ৭ নং ওয়ার্ডে শামসুন নাহার লিপি, ৮ নং ওয়ার্ডে আজিজা খানম এলিজা, ৯ নং ওয়ার্ডে মাজেদা খাতুন এবং ১০ নং ওয়ার্ডে রোকেয়া ফারুক।
দলীয় সূত্র জানায় ৪ ও ৩০ নং ওর্য়াড এবং সংরক্ষিত ২ নং ওয়ার্ডে একধিক প্রার্থী থাকায় উন্মুক্ত করা হয়েছে।
ওয়ার্ডে আলমগীর হোসেন ৩১ নং ওয়ার্ড গোলাম মোস্তফা সজীব মোলা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *