সোমবার, ডিসেম্বর ১৭, ২০১৮, ১২:৪৪:৩৫ পূর্বাহ্ণ
Home » খেলাধুলা » কোহলির সাইট ‘হ্যাক’ করেছেন বাংলাদেশি সমর্থকেরা

কোহলির সাইট ‘হ্যাক’ করেছেন বাংলাদেশি সমর্থকেরা

অনলাইন ডেস্ক :
এশিয়া কাপ ফাইনালে লিটন দাসের আউটের জের ধরে বিরাট কোহলির অফিশিয়াল সাইট ‘হ্যাক’ করেছে ‘সিএসআই’ নামে বাংলাদেশের একটি গ্রুপ। এমন খবরই জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম
এশিয়া কাপ ফাইনালে লিটন দাসের সেই আউট নিয়ে বিতর্ক থামছেই না। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আউটটির বৈধতার প্রশ্নে পক্ষে-বিপক্ষে তর্ক চলছেই। বাংলাদেশের বেশির ভাগ সমর্থক আউটটা কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছেন না। এর রেশ ধরে ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলির অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ‘হ্যাক’ করেছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা, এমনই এক খবর প্রকাশ করেছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম। তারা জানিয়েছে, সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ইন্টেলিজেন্স (সিএসআই) নামের বাংলাদেশের একটি গ্রুপ কোহলির অফিশিয়াল সাইট ‘হ্যাক’ করেছে।
কোহলির সাইটে ‘গ্যালারি’ অংশের প্রথম ছবিতে লিটনের আউট হওয়ার সেই ছবি এবং সিএসআইয়ের লোগো। কোহলির সাইটে ‘গ্যালারি’ অংশের প্রথম ছবিতে লিটনের আউট হওয়ার সেই ছবি এবং সিএসআইয়ের লোগো। এশিয়া কাপ ফাইনালে ব্যক্তিগত ১২১ রানে মহেন্দ্র সিং ধোনির স্টাম্পিংয়ের শিকার হন লিটন। রিপ্লেতে দেখা গেছে, লিটনের পা লাইনে ছিল। বেশ কয়েকটি অ্যাঙ্গেল থেকে দেখেও সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব হচ্ছিল না। এর ফলে ‘জুম ইন’ করে দেখার সিদ্ধান্ত নেন তৃতীয় আম্পায়ার রড টাকার। দৃশ্যপট বড় করার পর দেখা যায়, লাইনের ওপরেই ছিল লিটনের পা। তবে লাইনের পেছনে কোনো অংশে তাঁর পা ছিল না। ‘অন দ্য লাইন’-এর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত পুরোপুরি আম্পায়ারের হাতে এবং লিটনকে আউট ঘোষণা করা হয়। যদিও ‘বেনিফিট অব ডাউট’ ব্যাটসম্যানের পক্ষেই যায়।
ফাইনাল ম্যাচ মাঠে থাকতেই লিটনের সেই আউট নিয়ে বিতর্ক ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। দুই দেশের সংবাদমাধ্যমেও বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে আলোচিত হয়। তারই রেশ ধরে সিএসআই কোহলির সাইট ‘হ্যাক’ করেছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম। এই সংগঠনটি কোহলির সাইটে আইসিসিকে প্রশ্ন করেছে, ক্রিকেট কি ভদ্রলোকের মতো খেলা হচ্ছে?
‘গ্যালারি’ অংশে দ্বিতীয় ছবিতে রয়েছে বাঘের লোগোসহ একটি বার্তা। অংশে দ্বিতীয় ছবিতে রয়েছে বাঘের লোগোসহ একটি বার্তা। কোহলির সাইটে ‘গ্যালারি’ অংশে তিনটি ছবি আপলোড করেছে এই সংগঠন। প্রথম ছবির বাঁ পাশে লেখা ‘হ্যাকড বাই সিএসআই’। তার ওপরে স্যুট পরিহিত একটি দেহাবয়ব, যার মস্তিষ্ক নেই এবং পেছনে পাখির ডানা। ডান পাশে লিটনের সেই আউটের পাঁচটি ছবি একত্রে সংযুক্ত করে জুড়ে দেওয়া হয়েছে। পরের ছবিতে চারটি অংশ—যেখানে বাঘের ছবিসহ ওপরে লেখা সিএসআই। ডান পাশে স্যুট পরা সেই দেহাবয়ব আর নিচে বাঁ পাশে লিটনের আউটের সেই ছবি, যেখানে ছবির ওপরে একটি বার্তাও রয়েছে। পরের ছবিতে সেই বার্তা রয়েছে পুরো অংশে।
বার্তায় বলা হয়েছে, ‘প্রিয় আইসিসি, ক্রিকেট তো ভদ্রলোকের খেলা? সব দলেরই কি সমান অধিকার থাকা উচিত নয়? দয়া করে ব্যাখ্যা করো, এটা কীভাবে আউট? তোমরা যদি বিশ্বের সামনে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা না চাও এবং আম্পায়ারদের শাস্তি না দাও, তাহলে যতবার সাইট পুনরুদ্ধার করবে ততবারই হ্যাক করা হবে। ভারতীয় ভাই-বোনদের বলছি, তোমাদের অসম্মান করছি না। অনুগ্রহ করে একটু ভেবে দেখ, তোমাদের দলের সঙ্গে এমন অবিচার হলে কেমন লাগত? ম্যাচে প্রতিটি দলকে সমান চোখে দেখা উচিত। আমরা এর শেষ দেখে ছাড়ব।’

‘গ্যালারি’র তৃতীয় ছবির পুরো অংশেই সেই বার্তা আর সিএসআইয়ের লোগো। ‘গ্যালারি’র তৃতীয় ছবির পুরো অংশেই সেই বার্তা আর সিএসআইয়ের লোগো। বিশ্রাম পাওয়ায় এশিয়া কাপে খেলেননি কোহলি। তাঁকে ছাড়াই ফাইনালে বাংলাদেশকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় রোহিত শর্মার ভারত। আজ সন্ধ্যায় দেশটির সবচেয়ে জনপ্রিয় এই ক্রিকেটারের সাইটে গিয়ে দেখা গেছে ছবি ও বার্তাটা এখনো রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *