বুধবার, মার্চ ২০, ২০১৯, ৯:৫০:৩৩ অপরাহ্ণ
Home » অন্যান্য » কুমুদিনী পরিবারের আথিতিয়তায় মুগ্ধ প্রধান মন্ত্রী মেনুতে ছিল ৩১ আইটেমের বাঙ্গালী খাবার

কুমুদিনী পরিবারের আথিতিয়তায় মুগ্ধ প্রধান মন্ত্রী মেনুতে ছিল ৩১ আইটেমের বাঙ্গালী খাবার

মীর আনোয়ার হোসেন টুটুল, স্টাফ রিপোর্টারঃ-
মির্জাপুরে কুমুদিনী কমপ্লেক্্ের ভারতেশ^রী হোমসে শহীদ দানবীর রনদা প্রসাদ সাহা স্মারক সম্মননা স্বর্নপদক অনুষ্ঠানে পুরষ্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কুমুদিনী পরিবারের আথিতিয়তায়(আপ্যায়নে) মুগ্ধ হয়েছেন। প্রধান মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন তার ছোট বোন মেখ রেহেনা। প্রধান মন্ত্রীর জন্য ৩১ আইটেমের বাঙ্গালী খাবারের আয়োজন করেছিলেন কুমুদিনী পরিবার। কাঁসার থালায়(প্লেটে) খাবার ও কাঁসার গ্লাসে পানি পান করেছেন। অতিথিদের বিভিন্ন আইটেমের খাবার দিয়ে আপ্যায়ন কুমুদিনী পরিবারের পুরনো ঐতিহ্য। যুগ যুগ ধরে এমন রেওয়াজই চলে আসছে কুমুদিনী পরিবারের। এর আগে ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জিকেও এমন আপ্যায়ন করেছিলেন এই পরিবার। গতকাল বৃহস্পতিবারও প্রধান মন্ত্রীকে এভাবেই বাঙ্গালীয়ানা খাবার পরিবেশন করা হয় কুমুদিনী ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্ট্রের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাজিব প্রসাদ সাহার বাস ভবনে।
আজ শুক্রবার কুমুদিনী পরিবারের পুত্রবধু ও কুমুদিনী ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্ট্রের পরিচালক শ্রী মতি সাহা জানান, মাননয়ি প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের পরিবারেরই একজন সদস্য। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং দানবীর রনদা প্রসাদ সাহা(রায় বাহাদুর) ছিলেন পরম বন্ধু। সুখে দুখে এক সাথে দেশের সেবা করেছেন এই দুই মহামানব। দেশীয় দোসর আর রাজাকার আল বদর বাহিনী এই দুই মহানবকে হত্যা করেছে। দীর্ঘ দিন পর আমাদের পরিবারের সদস্য শেখ হাসিনা আমাদের বাড়িতে এসেছিলেন। তাকে আপ্যায়নের জন্য কোন কমতি ছিলনা আমাদের প্রতিটি পবিারেরর। দুপুরের খাবারের মেনুতে ছিল পায়েস, দুই, বিভিন্ন পিঠা, শাখ, মাছ, ডাল-ভাত, আলু ও বিভিন্ন মাছের ভর্তা, মাংস, পোলাও, কুরমা, মুড়ি মুরকী ও কাবাবসহ ৩১ আইটেমের ভিন্ন সাদের খাবারের আয়োজন। খাবার পরিবেশন করেন কুমুদিনী পরিবারের অন্যতম সদস্য ও একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রতিভা মুৎসুদ্দি, কুমুদিনী ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্টের পরিচালক সস্পা সাহা।
এ ব্যাপারে কুমুদিনী ওযেল ফেয়ার ট্রাস্টের এমডি রাজিব প্রসাদ সাহা ও পরিচালক শিক্ষা প্রতিভা মুৎসুদ্দি বলেন, প্রধান মন্ত্রী আমাদের বাড়িতে এসেছেন এটা আমাদের জন্য পরম সৌভাগ্য। তিনি একজন মহান ও গুনী ব্যক্তি। তাকে আপ্যায়ন করতে পেরে কুমুদিনী পরিবার ধন্য। তাদের এমন আপ্যায়নে প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার ছোট বোন শেখ রেহেনা খুবই খুশী হয়েছেন বলে জানিয়েছেন।
উল্ল্যেখ্য যে, প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার ছোট বোন শেখ রেহেনা গতকাল বৃহস্পতিবার ভারতেশ^রী হোমসে এসেছিলেন পুরষ্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে। কুমুদিনী ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্ট্র অব বেঙ্গল(বিডি) লি. দানবীর রনদা প্রসাদ সাহা স্মারক সম্মনা স্বর্নপদক অনুষ্ঠানের আয়োজক ছিলেন। কিংবদন্তীতুল্য রাজনীতি নেতা ও তদানীন্তন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী(মরনোত্তর), বিদ্রোহী ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম (মরনোত্তর), শিল্পী সাহাবুদ্দিন এবং নজরুল বিশেষজ্ঞ ও গবেষক অধ্যাপক রফিকুল ইসলামকে স্মারক সম্মননা স্বর্ণপদক প্রদান করা হয়। হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর পক্ষে সম্মাননা স্মারক স্বর্নপদক গ্রহন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোট বোন শেখ রেহেনা এবং বিদ্রোহী ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের পক্ষে স্মারক সম্মাননা স্বর্নপদক গ্রহন করেন তার নাতনী খিলখিল কাজী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *